May 16, 2021

University Live 24

The Mirror of University Life

মামুনুলর পক্ষে ফেসবুক লাইভে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ

সমালোচিত হেফাজত নেতা মামুনুল হকের পক্ষ নিয়ে ফেসবুক লাইভে বঙ্গবন্ধু, মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে বাজে মন্তব্য করায় গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া গ্রামের মোঃ হাবিবুল্লাহ শরীফ নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে পারুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) সকালে পারুলিয়া ইউনিয়নে বিক্ষোভ মিছিল শেষে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি বাবু মিয়া, সাধারন সম্পাদক খন্দকার সেকেন্দার আলী, কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য শরীফ আজিজ সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়ামিলীগের নেতৃবৃন্দ। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা অনতিবিলম্বে কটুক্তিকারী হাবিবুল্লাহ শরীফকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। আভিযুক্ত মোঃ হাবিবুল্লাহ শরীফ কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা এবং মাদ্রাসা শিক্ষক এনায়েত শরীফের পুত্র। তিনি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী।

জানা যায়, গ্রেপ্তার হওয়া আলোচিত হেফাজত নেতা মামুনুল হকের পক্ষ নিয়ে সম্প্রতি হাবিবুল্লাহ শরীফ ফেসবুক লাইভ এবং ৫ মিনিটের একটি ভিডিও শেয়ার করে। সেখানে ওই মাদ্রাসা শিক্ষার্থী মামুনুল হকের বিরুদ্ধে যারা কথা বলেছেন তাদেরকে নিয়ে নানা বাজে মন্তব্য এবং হুমকি প্রদান করেন। এছাড়া ভিডিওতে তিনি বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে নানা কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন।

নারায়নগঞ্জের একটি রিসোর্টে একজন নারী সহ জনতার হাতে হেফাজত নেতা মামুনুল হকের আটক হওয়া প্রসঙ্গে ওই মাদ্রাসা ছাত্র লাইভ ভিডিওতে বলেন , “আমরা দেখতে পেয়েছি, মুহতারাম মাওলানা মামুনুল হক সাহেব ও তার সেকেন্ড স্ত্রীর সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ আচরণকারী কয়েকজন সন্ত্রাস টেরোরিস্টকে। মাদার অফ মাফিয়া তাদেরকে পালন করে শুধুমাত্র সমাজটাকে ধ্বংস করার জন্য, অপকর্ম করে বিশৃঙ্খলা করে সহিংসতা চালিয়ে কিভাবে সমাজ তাকে ধ্বংস করা যায়, এজন্য তাদেরকে পালন করে মাদার অফ মাফিয়া।” ৫ মিনিটের লাইভ ভিডিওতে তিনি মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে কটূক্তি করে বলেন , “মামুনুল হক এদেশের একজন খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব। মুক্তিযুদ্ধে যারা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন তার সন্তান, আজিজুল হক সাহেবের সন্তান। তোদের পরিবারে কোন মুক্তিযোদ্ধা আছে? তোদের পরিবারের ছিলো তামাল কামাল, উপযুক্ত ছেলে সন্তান ছিল, একটা ছেলে মুক্তিযোদ্ধায় আসেনি। তোদের কেউ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেনি। তোদের নেতা, তোদের নেতা গলাবাজি করেছে শুধু, মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে..? সে সিগারেট নিয়ে সিগারেটের পাইপসহ পাকিস্তানি কারাগারে বন্দি হয়ে আয়েশি জীবন যাপন করেছে শুধু।”

পারুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সাধারন সম্পাদক খন্দকার সেকেন্দার আলী বলেন, “কুলাঙ্গার হাবিবুল্লাহ শরীফ কেবল আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে কটূক্তি করেনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতীর পিতা বঙ্গবুন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে কটূক্তি করেছে। মুতিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের মহান মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদানকে নিয়ে কটূক্তি করেছে। আমরা করোনা লকডাউনের জন্য আজকে সংক্ষিপ্ত আকারে বিক্ষোভ মিছিল করেছি অতি দ্রুত কটূক্তিকারীকে গ্রেপ্তার করা না হলে আরো বড় কর্মসূচি দেওয়া হবে।”

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মনিরুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। অভিযুক্ত হাবিবুল্লাহ শরীফের বিষয়ে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তবে সে পলাতক রয়েছেন বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *