September 26, 2022

University Live 24

The Mirror of University Life

শিক্ষার্থীদের খণ্ডকালীন চাকরি দেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

1 min read

আর্থিকভাবে অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের ছুটির দিনে খণ্ডকালীন চাকরির ব্যবস্থা করার উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষার্থীদের চাকরির বাজারে আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে ‘স্টুডেন্ট প্রমোশন অ্যান্ড সাপোর্ট ইউনিট’ প্রতিষ্ঠা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। এই ইউনিটের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে খণ্ডকালীন চাকরি পেতে সহযোগিতা করা হবে।

রোববার (১১ই সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত ১৬ জুন বার্ষিক সিনেট অধিবেশনে ‘স্টুডেন্ট প্রমোশন অ্যা সাপোর্ট ইউনিট’ গঠন করার ভাবনা প্রকাশ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।  গত ৩০ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেট সভায় এ নীতিমালার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। এর আগে অনুষ্ঠিত হওয়া ডিনস কমিটির মিটিংয়ে এ ইউনিট গঠন করার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

ইউনিটের নীতিমালা বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে প্রতি বছর ভর্তি হওয়া প্রথম বর্ষের আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল ও আগ্রহী শিক্ষার্থীদের কাছে দরখাস্ত আহ্বান করা হবে এবং একটি ডাটাবেজ তৈরি করা হবে। অন্যদিকে সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্ত্বশাসিত ও ব্যক্তি মালিকানাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এই উদ্যোগে সহায়তা প্রদানের জন্য তাদের চাহিদা আহ্বান করা হবে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে খণ্ডকালীন কাজের সুযোগ পাবেন শিক্ষার্থীরা।

নীতিমালায় আরও বলা হয়, খণ্ডকালীন কাজের ধরন ও প্রকৃতি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের কর্মশালার আয়োজন করা হবে। পাশাপাশি বিভাগ ও ইনস্টিটিউটগুলোকে ‘গ্র্যাজুয়েট প্রমোশন অ্যান্ড স্কিল ডেভলপমেন্ট প্রোগ্রাম’ পরিচালনায় প্রয়োজনীয় সহায়তাও দেবে বিশ্ববিদ্যালয়।

এ বিষয়ে ইতিহাসবিদ ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, বিদেশে আমরা দেখেছি শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ধরণের খণ্ডকালীন চাকরি করে নিজেদের খরচ জোগায়। বাংলাদেশে সেটি খুব বেশি চোখে পড়ে না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যদি এ রকম নীতিমালা প্রণয়ন করে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ ও যোগ্য করে গড়ে তুলে তাহলে এটি খুবই ভালো কাজ। বিশ্ববিদ্যালয়ের এ রকম উদ্যোগে জাতি একটি প্রশিক্ষিত গোষ্ঠী উপহার পাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ গঠনে শিক্ষার্থীদের যুক্ত করতে এ পদক্ষেপ আমরা নিয়েছি। এর মাধ্যমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আমাদের শিক্ষার্থীরা শর্ত পূরণ করে চাকরির জন্য সুযোগ করে দেবে বিশ্ববিদ্যালয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দক্ষ, অভিজ্ঞ ও আত্মবিশ্বাসী মানবসম্পদে পরিণত করতে বিভিন্ন কর্মমুখী প্রশিক্ষণ দিতেও কাজ করবে নতুন এই ইউনিট। এছাড়া ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) প্রতিষ্ঠিত এই কেন্দ্রে শিক্ষার্থীরা বিস্তারিত তথ্য ও সহযোগিতার জন্য ইউনিটের উপদেষ্টা ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল কবিরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.